৮ম শ্রেণির ৫ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট ২০২২ | Class 8 science assignment 5th week 2022

৮ম শ্রেণির ৫ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট ২০২২ | Class 8 science assignment 5th week 2022: ৮ম শ্রেণির ৫ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২২ সন্ধান করছেন তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় চলে এসেছেন। 

৮ম শ্রেণির ৫ম সপ্তাহের বিজ্ঞান এসাইনমেন্ট  প্রশ্ন ও উত্তর প্রকাশ করেছি। আপনি আপনার শ্রেণির অ্যাসাইনমেন্টের  প্রশ্ন এবং সমাধান গুলিও দেখতে পারেন।

৮ম শ্রেণির ৫ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট ২০২২ | Class 8 science assignment 5th week 2022

অ্যাসাইনমেন্টের নমুনা উত্তর দেখার ফলে আপনাদের অ্যাসাইনমেন্ট তৈরি করা আপনার পক্ষে সুবিধাজনক হবে। প্রিয় শিক্ষার্থী,  আপনি যদি ৫ম সপ্তাহ ৮ম শ্রেণি বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট সমাধান সন্ধান করছেন, আমরা আপনাদের জন্য  বিশেষজ্ঞের সহায়তায় আমরা শিক্ষার্থীদের জন্য সর্বোত্তম গনিত উত্তর প্রকাশ করার চেষ্টা করেছি  আপনার বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্টটি সম্পূর্ণ করতে, নিচের নমুনা উত্তর  আপনাকে আপনার অ্যাসাইনমেন্ট  লেখার  অনেক সহায়তা করবে।

৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট বিজ্ঞান ৫ম সপ্তাহের

২০২২ সালের ৮ম শ্রেণি ৫ম সপ্তাহের গনিত অ্যাসাইনমেন্ট সম্পর্কে সকল তথ্য আমাদের এখানে বিস্তারিত  আলোচনা করা হয়েছে। আপনি যদি গনিত এসাইনমেন্ট সম্পর্কিত কোন তথ্য জানতে চান, তাহলে আমাদের পোস্টটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ভালভাবে পড়ুন। তাহলে আশা করা যায় ৮ম শ্রেনি গণিত এসাইনমেন্ট সম্পর্কে সকল তথ্য আপনি আমাদের এই পোস্টটি থেকে জানতে পারবেন।

৮ম শ্রেণির ৫ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট ২০২২ | Class 8 science assignment 5th week 2022

চলুন দেখে নেওয়া যাক, ২০২২ সালের ৮ম শ্রেণি ৫ম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট এ কি কি বিষয় প্রকাশিত হয়েছে। ৫ম সপ্তাহে ৮ম শ্রেনির জন্য দুটি বিষয় প্রকাশিত হয়েছে। যথা:

২০২২ সালের ৮ম শ্রেণি ৫ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট

অষ্টম শ্রেণির ৫ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট ২০২২ | Class 8 science assignment 5th week 2022

৫ম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট ৮ম শ্রেণির বিজ্ঞান উত্তর

ক) নং প্রশ্নের উত্তর:

জীবদেহের বৃদ্ধির কারণ: জীবদেহ বৃদ্ধির কারণ হলাে কোষ বিভাজন। এই কোষ বিভাজন আবার তিন প্রকার। যথাঃ

১। অ্যামাইটোসিস কোষ বিভাজন

২। মাইটোসিস কোষ বিভাজন

৩। মিয়ােসিস কোষ বিভাজন।

তবে দেহ বৃদ্ধির জন্য মাইটোসিস প্রক্রিয়ায় কোষ বিভাজন হয়ে থাকে। এই প্রক্রিয়ায় প্রথমে মাতৃকোষ বিভাজিত হয়ে সমআকৃতির, সমগুণসম্পন্ন, সমানসংখ্যক ক্রোমােজোম বিশিষ্ট দুটি অপত্য কোষের সৃষ্টি করে। কারণ এতে অপত্য কোষ হুবুহু মাতৃকোষের মত হয়ে থাকে।

প্রাণীর দেহকোষে মাইটোসিস কোষ বিভাজন হয়। এছাড়াও উদ্ভিদের বর্ধিষ্ণু অঞ্চল ও পুষ্পমুকুলে এ বিভাজন দেখা যায়। এভাবে জীবদেহের বৃদ্ধিতে মাইটোসিস কোষ বিভাজন একটি কোষ থেকে দুটি, দুটি থেকে চারটি এবং চারটি থেকে আটটি আকারে বৃদ্ধি পেতে থাকে।

খ) নং প্রশ্নের উত্তর:

৮ম-শ্রেণির-বিজ্ঞান-৫ম-সপ্তাহের-অ্যাসাইনমেন্ট-উত্তর-২০২২-2
৮ম-শ্রেণির-বিজ্ঞান-৫ম-সপ্তাহের-অ্যাসাইনমেন্ট-উত্তর-২০২২-3

গ) নং প্রশ্নের উত্তর

নিম্নে সমগুণ সম্পন্ন দুটি অপত্য কোষের ক্রোমজোম সংখ্যা ধ্রুবক থাকার কারণ বর্ণনা করা হলো:

মাইটোসিস কোষ বিভাজনে অপত্য কোষগুলাের ক্রোমােজোম সংখ্যা মাতৃকোষের সমান থাকে। বৃদ্ধি ও অযৌন জননের জন্য মাইটোসিস কোষ বিভাজন অপরিহার্য।

যৌন জননে পুং ও স্ত্রী জনন কোষের মিলনের প্রযােজন পড়ে। যদি জননকোষগুলাের ক্রোমােজোম সংখ্যা দেহকোষের সমান থেকে যায় তাহলে জাইগােট কোষে জীবটির ক্রোমােজোম দেহকোষের ক্রোমােজোম সংখ্যার দ্বিগুণ হয়ে যাবে।

মিয়ােসিস কোষ বিভাজনে জননকোষে ক্রোমােজোম সংখ্যা মাতৃকোষের ক্রোমােজোম সংখ্যার অর্ধেক হয়ে যায়। ফলে দুটি জননকোষ একত্রিত হয়ে যে জাইগােট গঠন করে তার ক্রোমােজোম সংখ্যা প্রজাতির ক্রোমােজোম সংখ্যার অনুরূপ থাকে। এতে নির্দিষ্ট প্রজাতির ক্রোমােজোম সংখ্যার ধ্রুবতা বজায় থাকে।

ঘ) নং প্রশ্নের উত্তর

ক্রোমােসােমকে বংশগতির ভৌত ভিত্তি বলার কারণ:

জীবের এক একটি বৈশিষ্ট্যের জন্য একাধিক জিন কাজ করে, আবার কোনাে কোনাে ক্ষেত্রে একটিমাত্র জিন বেশ কয়েকটি বৈশিষ্ট্যকে নিয়ন্ত্রণ করে। মানুষের চোখের রং, চুলের প্রকৃতি, চামড়ার রং ইত্যাদি সবই জিন কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত।

মানুষের মতাে অন্যান্য প্রাণী ও উদ্ভিদের বৈশিষ্ট্যগুলােও তাদের ক্রোমােজোমে অবস্থিত জিন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। ক্রোমােজোম জিনকে এক বংশ থেকে পরবর্তী বংশে বহন করার জন্য বাহক হিসাবে কাজ করে বংশগতির ধারা অক্ষুন্ন রাখে।

মিয়ােসিস কোষ বিভাজনের দ্বারা বংশগতির এ ধারা অব্যাহত থাকে। ক্রোমােজোম বংশগতির ধারা অক্ষুন্ন রাখার জন্য কোষ বিভাজনের সময় জিনকে সরাসরি মাতা-পিতা থেকে বহন করে পরবর্তী বংশধরে নিয়ে যায়। এ কারণে ক্রোমােজোমকে বংশগতির ভৌতভিত্তি বলা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.